অভিমান

আমার কাছে রাগ ,অভিমান, কখনও একরকম ছিলো না। কারণ হোয় তো বা আমি এর পিছনের পার্থক্য টা বুঝতাম । কিন্তু খুব কম মানুষ ই আছে এই দুটি জিনিস এ পার্থক্য করতে পারে । ফলাফল এইটাই হয় যে এইসব এর মাঝে শুরু হয় দুই জন কাছের মানুষের মধ্যে ভুল বোঝাবঝির । আমি একটা জিনিস সবসময় চিন্তা করি যে দুই জন রাগী মানুষ কখনই এক সাথে বসবাস করতে পারে না । এটার মদ্ধে একটা বিজ্ঞানীর কথা আমার সবসময় মনে পড়ে যে সক্রেটিস এর বউ ছিলো অনেক রাগী কিন্তু সক্রেটিস ওহ কম রাগী ব্যাক্তি ছিলেন না । কিন্তু তিনি সবকিছু খুব ধর্য নিয়ে দেখতেন সহ্য করতেন । তখন তিনি কোনো একসময় বলেছিলেন টু অ্যাংরি পারসন ক্যান নেভার বি টুগেদার ইফ ওন অফ দেম কন্ট্রোল দেম । তো আমিও এমন টাই দেকলাম অনেক ক্ষেত্রেই যে আমি রাগ এর মাথায় সবচে বেশি ভুল বলি কিন্তু যদি আমি নিজের রাগ টা কে নিজের দুর্বলতা হিসেবে দেখতাম তাহলে রাগ ই করতাম । রাগ কম করি বলেই ধর্য নিয়ে কাজ করি ।
অভিমান শব্দটা নিজের মধ্যেই একটা ভালোবাসার প্রতীক। অভিমান জিনিস টা সম্পর্ক কে আরও এক ধাপ আগায়ে নেয় প্রিয় মানুষটার কাছে ।

তোমার অভিমান আমার কাছে মিষ্টি লাগে
তোমার অভিমান আমার কাছে নতুন আবেগ লাগে
তোমার অভিমান তোমার একটু পাগলামি আর ভালোবাসা লাগে
তোমার অভিমান আমার সবথেকে প্রিয় লাগে
তোমার অভিমান আমার অধিকার লাগে

কিছু সম্পর্ক ভালোবাসা দিয়েই কেবল সবার কাছে প্রিয় না । অবশ্যই প্রতি টা সম্পর্কের একটি জিনিস সবার কাছে প্রিয় ।
আমার কাছে অভিমান টা সবথেকে প্রিয় কারণ অভিমান টা আমকে সবসময় তোমার আর ও কাছে নিয়ে আসছে । কারণ আমার গর্ব তুমি ,
আমার সবচেয়ে সুন্দর ভুল তুমি
আমার সবচেয়ে সুন্দর সত্যি তুমি ।

Share This:
Close Menu

Content

Share This: