নিজেকে ভালোবাসুন – ২

নিজেকে ভালোবাসুন-০২

কেমন আছেন সবাই? আশা করি ভালো আছেন সবাই ।

গত দিন আমরা জেনেছি ভালোবাসার সংঙ্গা । আজ তাহলে চলুন পরবর্তী প্রশ্ন গুলোর উত্তর নিয়ে একটু আলোচনা করা যাক ।

গত পর্বে আমরা জেনেছি ভালোবাসা কি ? তাই না? নাকি এখনো গত পর্ব পড়া হয় নি আপনাদের যদি না পড়ে থাকেন তাহলে পড়ে নেন দ্রুত । কারণ আপনি যদি পড়ার ধারাবাহিকতা বজায় না রাখেন তাহলে আমি যেই কথাটা বা মেসেজ টা আপনাকে দিতে চাচ্ছি তা থেকে আপনি বঞ্চিত হবেন ।

 

আচ্ছা থাক যদি আপনারা কেউ না পড়ে থাকেন গত পোস্ট আমি তো জোর করে আপনাকে পড়াতে পারবো না। তার থেকে চলুন আজ নতুন পর্ব শুরু করি ।

 

গত পোস্টে আপনাদের একটা প্রশ্ন করেছিলাম যে আপনারা আপনাদের কতটা ভালোবাসেন ?

আচ্ছা কখনো নিজেকে আপনি এটা প্রশ্ন করেছিলেন যে আপনি নিজেকে কতটা ভালোবাসেন? নিজের ইচ্ছা গুলো পূরণ করেছিলেন কিনা ?

ভালোবাসার মানে তো বুঝেন ই তবে আমি মনে করি আপনারা কেউ ই নিজেকে ভালোবাসেন না । কারণ আপনারা সবাই অপরকে ভালোবাসতে অপরকে ভালোরাখতেই আপনাদের দিন চলে যায়।

আমি বলছি না অন্য কে ভালোবাসা পাপ বা ভুল । আমার কথা হলো আপনি অন্যকে ভালোবাসুন তবে কি আপনি প্রথমে নিজেকে ভালোবেসেছেন? সত্যি কখনো বেসেছেন ভালো?

আপনি অন্যের ইচ্ছে পূরণ করে খুশি হন । আপনার প্রিয় মানুষের ইচ্ছা টা যখন আপনি পূরণ করেন আপনার মনে একটা পুলক কাজ করে। আপনার মন খুশিতে ভরে যায় । আচ্ছা কখনো একটু খেয়াল চিন্তা করে দেখেছন যে অন্যের ইচ্ছে পূরণে আমি যেই খুশিটা পাচ্ছি যদি আমি আমার অপূর্ণ ইচ্ছে গুলো পূরণ করি তাহলে আমি কতটা খুশি হবো? অন্যের খুশিতেই নিজের খুশি কথা টা সত্য তবে যদি তোমার পেটের ক্ষুধা না মেটাও তাহলে কি বাঁচবে ? বাঁচবে না । ঠিক তেমনি অন্যের ইচ্ছে পূরণের আগে নিজের মনের খোরাগ , ইচ্ছে গুলো পূরণ করে দেখো পৃথিবীর ভূসর্গ তুমি উপলব্ধি করতে পারবে । ( আপনি বলার পর হঠাৎ তুমি বলেছি কথা গুলোকে অধিক পাঠকপ্রিয় করে তোলার জন্য)

আপনি আমি আমরা কেউই নিজেদের ভালোবাসি না । ছোটবেলায় আমরা সবাই নানা ইচ্ছে করি যে আমি বড় হয়ে ডাক্তার হবো আমি ইন্জিনিয়ার হবো , আমি নায়ক হবো , আমি বিজ্ঞানী হবো । আচ্ছা কখনো দেখেছেন আপনাদের এই ইচ্ছে গুলো সত্যি ই পূরণ হয়েছে? আমাদের চারিদিকের পরিবেশ যাকে বলে পারিপার্শিক সমাজ ব্যবস্থা, শিক্ষা ব্যবস্থা আবার কখনো নিজেদের ব্যর্থতা আমাদের এই ইচ্ছে গুলো পূরণে বাধা হয়ে দাড়ায় । তবে আমরা কি কখনো সৎ সাহস নিয়ে চেষ্ঠা করি ? যদি আমি প্রশ্ন করি আপনি যে বড় হয়ে ডাক্তার হতে চেয়েছিলেন এটা কি সত্যি ই আপনার নিজের ইচ্ছে ছিল? নাকি অন্য কারো?

যদি বলি বইয়ে আমার ইচ্ছা, My future plan পড়ে আপনি এটা শিখছেন !

আসলে আমাদের ছোটবেলার এই ইচ্ছা গুলো সম্পূর্ণ ভাবে আমাদের পারিপার্শিক নানা কারণে । যেই সব শিশু ছোটবেলায় অনেক ছবি দেখে তারা ছবির অনেক গুলো চরিত্রের মধ্যে একটা চরিত্র বেছে নেয় । তারা বেছে নেয় ঐ চরিত্রটিকে যেটিকে ছবির পরিচালক অধিক প্রাধান্য দেয় । অনেকে নিজেকে নায়ক ভাবতে শুরু করে, কেউ পুলিশ হতে চেষ্টা করে কেউ বা অন্য কোনো চরিত্র । এটা সম্পূর্ণ অস্থায়ী । এরপর যখন সে বিদ্যালয়ে গিয়ে my future plan পড়ে তখন সে আবার একটা মুখস্থ বিদ্যায় চলে যায় । একটা ক্লাসে ৫০ জন থাকে তাদের সবার আলাদা আলাদা ইচ্ছা থাকাটাই স্বাভাবিক কিন্তু আমাদের শিক্ষা ব্যবস্থা তাদের একটা ইচ্ছে মুখস্থ করায় দেয় । যা মুখস্থ করতে না পারলে ক্লাসের বাইরে যে কান ধরে দাড়িয়ে থাকতে হবে এটা সুনিশ্চিত । এতে তার ইচ্ছা দেশের প্রধানমন্ত্রী হওয়াই হোক না কেন তাকে ওখানে দাড়িয়ে থাকতে হবে কারণ সে আমার ইচ্ছা বা my future plan মুখস্থ করতে পারে নি । আচ্ছা আপনারাই বলুন আপনি কি নিজের ইচ্ছা মুখস্থ করতে পারবেন বা আপনি কি এটা মানবেন যে আপনার উপর অন্য কেউ কোনো ইচ্ছা চাপায় দেক?

মনে করুন আপনি এখন আমার এই আর্টিকেল টি পড়বেন না আপনাকে যদি জোর পূর্বক এই আর্টিকেল পড়তে বলা হয় এবং এটা মুখস্থ করতে বলা হয় তখন কেমন লাগবে তোমার?

এখন তো আশা করি আপনাদের যথেস্ট বয়স হয়েছে আমি যেটা বলার চেষ্টা করছি ? আপনার স্বাধীনতা যদি আপনার কাছ থেকে কেড়ে নেয়া হয় তাহলে কেমন লাগবে? আপনাদের বলেই বা কি হবে । আপনারা এটা পড়বেন আবার একটু পর আপনাদের সন্তানদের মুখস্থ ধরবেন তাদের মুখস্থ হয়েছি কিনা my future plan . আসলে আমাদের মানসিকতাটার মধ্যে এটা একদম গেথে গেছে । যার কারণে আমাদের যতই শিক্ষা , জ্ঞান বা motivational দেয়া হোক না কেন আমরা যেমন তো তেমনি থেকে যাবো ।

 

আজ অনেক বেশি বলে ফেললাম তাই না ? কিছু কথা মাথায় ঢুকছে কিছু ঢুকে নাই তাই না ? ঢুকবে আগামী আর্টিকেলে … পড়বেন তো আমার পরের আর্টিকেল?

( কেমন লাগলো পড়ে এটা তো জানাতে পারেন । তাহলে আমি ও বুঝি আপনারা আমার আর্টিকেল টি পড়ছেন । )

সময় নিয়ে পড়ার জন্য ধন্যবাদ

-রংধনু

Share This:

রংধনু

আমি আসিফ আমান জিহাদ । একজন শিক্ষার্থী যে নতুন কিছু শিখতে শেখাতে ও জানাতে পছন্দ করে। এবং সর্বদা কথা কাজ তথ্য দিয়ে মানবতার পাশে থাকতে চাই
Close Menu

Content

Share This: