ফিশিং কি? ফিশিং করে কিভাবে ফেসবুক হ্যাক করবেন?

আপনি কি ফেসবুকে লগিন করছেন? যেখানে লগিন করছেন সেটা আসলেই ফেসবুক তো? কোথাও আপনার ইমেইল আর পাসওয়ার্ড কোন হ্যাকারের হাতে চলে যাচ্ছে নাতো? আজকে এই সকল প্রশ্নের উত্তরই খুজে বের করব আমরা। 

প্রিয় সাইবার বাংলাবাসী। কেমন আছেন সবাই? মহান আল্লাহর অশেষ রহমতে আমি অনেক ভালো আছি। আজকে আমরা আলোচনা করতে যাচ্ছি কিভাবে ফিশিং করে একজন মানুষের ব্যাক্তিগত পাসওয়ার্ড হ্যাক করা হয়।

বিঃদ্রঃ এই পোস্টটি শুধু মাত্র জানানোর জন্যে করা হচ্ছে। তাই কেউ এর খারাপ ব্যবহার করবেন না। 

ইন্টারনেট জগতে নানা প্রকার মানুষ দেখা যায়। এখানে জ্ঞানশুন্য ব্যাক্তি থেকে নিয়ে মহাজ্ঞানী মানুষ পর্যন্ত পাওয়া যায়। আবার সাধারণ মানুষ থেকে নিয়ে টেকনিক্যালি বিশষজ্ঞ পর্যন্ত ব্যবহার করে এই ইন্টারনেট। পাশাপাশি ভালো মানুষ থেকে শুরু করে খারাপ মানুষও পাওয়া যায় এই জগতে। আমরা চাই যেন সবাই সমান ভাবে এই ইন্টারনেট কে ব্যবহার করতে পারে। তাই আমাদের আজকের আলোচনা।

Phishing - ফিশিং

ফিশিং কিঃ- যারা জানেন না যে ফিশিং টা আসলে কি তাদের জন্যে প্রথমে ফিশিংটাকে একটু বর্ণনা করে নেই। ফিশিং হচ্ছে এমন একটি ব্যবস্থা যেখানে যেকোন একটি জনপ্রিয় ওয়েবসাইট যেমন ফেসবুক, গুগল বা এমন কোন সাইট যেখানে অনেক ব্যবহার কারী প্রতিদিন আসা যাওয়া করে এমন ওয়েবসাইটের হুবুহু নকল ডিজাইন করা হয়। সহজ ভাষায় বলতে গেলে একটি ওয়েবসাইটের ডিজাইন কপি করে অন্য একটি নকল ওয়েবসাইট ডিজাইন করা। যেখান থেকে ঐ আসল জনপ্রিয় ওয়েবসাইটের ব্যবহার কারীদের লগিন করিয়ে তাদের ইউজারনেম ও পাসওয়ার্ড সহ অনেক কিছুই হাতিয়ে নেওয়া হয়।

এর এত বেশি কার্যকারীতার পেছনে কারণ হলো ব্যবহারকারীদের অজ্ঞতা বা অসাবধানতা। কারণ তারা কখনো চেক করে না যে যেখানে তারা লগিন করছে সেই ওয়েবসাইটটি আসলেই আসল নাকি কোন হ্যাকারের বানানো ফাঁদ।

আপনি কি ফিশিং সাইট বানাতে পারবেনঃ- হ্যা, আপনিও সাইলে খুব সহজেই আপনার নিজের একটি ফিশিং সাইট বানাতে পারবেন। এতে তেমন বেশি কিছুরই দরকার হবে না। শুধু একটি ইন্টারনেট কানেকশন এবং ইন্টারনেট ব্যবহার করার জন্যে একটি ডিভাইস হলেই চলবে। তাহলে চলুন দেখে নেই কি করে আপনি নিজের জন্যে একটি ফিশিং সাইট তৈরি করতে পারবেন।

চলুন প্রথমেই একটি ভিডিও দেখে নেই।

এখনো বুঝতে পারেননি? তাহলে পড়তে থাকুন 🙂

ফিশিং তৈরি ধাপ-১ঃ  যেহেতু আমরা সম্পূর্ণ আমাদের নিজের একটি ওয়েবসাইট তৈরি করতে যাচ্ছি তাই প্রথমেই আমাদের দরকার হবে একটি ডিজাইন করা ওয়েবসাইট। একটি ওয়েবসাইট ডিজাইন করতে শুধুমাত্র HTML এবং CSS ই যথেষ্ট। বলে রাখা ভালো এই দুটো হচ্ছে ওয়েব ডিজাইনের মৌলিক উপাদান।

HTML & CSS Book

আপনি যদি নিজে ওয়েব ডিজাইন পারেন তাহলেতো আপনি নিজেই যেকোন ওয়েবসাইটের হুবুহু ডিজাইন করে নিতে পারবেন। অথবা আপনার যদি পরিচিত কোন ওয়েব ডিজাইনার থাকে তাহলে আপনি তাকে দিয়েও একটি ওয়েবসাইটের নকল ডিজাইন বানিয়ে নিতে পারবেন।

কিন্তু আমি জানি যে বেশিরভাগ মানুষেরই এই দুটো থেকে একটি অপশনও খুলা নেই। তাদেরকেও বলছি চিন্তার কোন কারণ নেই, আমিতো আছি। আপনি শুধু আমার এই পোস্টটি আপনার সোসাল মিডিয়া একাউন্ট বা ফেসবুকে একবার শেয়ার করে দিন আমি আপনাকে ফেসবুকের ফিশিং কোড গুলো দিয়ে দিবো। অবশ্যয় আপনি শেয়ার করা পরে এই একাউন্টে একটি স্ক্রিনশট পাঠাবেন, তাহলেই আপনাকে আমি ফেসবুকের জন্যে ডিজাইন করা ফিশিং সাইটটি আপনাকে দিয়ে দিবো।

ফিশিং তৈরি ধাপ-২ঃ এর পরই দরকার হবে একটি ডোমেইন ও হোস্টিং এর। যারা ডোমেইন এবং হোস্টিং শব্দ দুটো একদমই নতুন শুনছেন তাদের উদ্দেশ্যে অল্প করে দুটো কথা বলে রাখি।

WEB

একদম সাধারণ ভাষায় বুঝাতে গেলে একটি ওয়েবসাইটের লিংক হিসেবে আপনি যা ব্যবহার করেন তাই ঐ ওয়েবসাইটের ডোমেইন। যেমনঃ https://www.cyberbn.com এটা হচ্ছে সাইবার বাংলার ডোমেইন। আর একটি ওয়েবসাইটের সকল তথ্য বা ফাইল রাখার জন্যে যে ভার্চুয়াল একটি মেমরির দরকার হয় সেটাই হচ্ছে হোস্টিং।

আপাতত এতটুকুই জেনে রাখুন। অবশ্য ডোমেইন হোস্টিং এর বিষয়ে আরো বিস্তারিত আলোচনা আছে তবে সেগুলো নিয়ে এই পোস্টে না। অন্য কোন একটি পোস্টে কথা বলব ইনশা আল্লাহ্‌ ।

এখন চলুন দেখে নেই কি করে আপনার নিজস্ব একটি ডোমেইন ও হোস্টিং পাবেন। আপনার নিজস্ব একটি ডোমেইন ও হোস্টিং পেতে প্রথমে এখানে ক্লিক করুন। এখানে ক্লিক করার পর আপনি একটি ওয়েবসাইটে চলে যাবেন। সেখান থেকে আপনি Sign Up For Free তে ক্লিক করবেন। এখন তারা আপনাকে জিজ্ঞেস করবে যে আপনি কোন ধরনের হোস্টিং নিতে চান। সেক্ষেত্রে আপনাকে তিনটি অপশন দেওয়া হবে। আপনি সেখান থেকে GET FOR FREE তে ক্লিক করবেন। বুঝতে সমস্যা হলে নিচের ছবিটি দেখুন।

Free Planএটাতে ক্লিক করার পর আপনার সামনে একটি নিবন্ধন ফর্ম আসবে নিচের ছবিটির মতো। ঐখানে আপনার ইমেইল এড্রেস, পাসওয়ার্ড আর চাইলে ওয়েবসাইটের নামে দিয়ে দিবেন। তারপর GET FREE HOSTING বাটনে ক্লিক করবেন।

Signup Formকিছুক্ষন আগে আপনি ওয়েবসাইটের ঘরে যে নামটি দিয়েছেন, এখন সেটা আপনার সামনে কিছু অপশন সহ আসবে। সেখান থেকে আপনি  Manage Website অপশনে ক্লিক করবেন। নিচের ছবিটি লক্ষ করুন [মার্ক করা জায়গাটির উপরের লাল বাটনটি]।

Mange websiteএখন আপনাকে আপনার ওয়েবসাইটের মেনেজ পেজে নিয়ে যাওয়া হবে। সেখান থেকে উপরে মেনু আইকন টাতে ক্লিক করুন। ক্লিক করার পরে সেখান থেকে File Manager অপশনে ক্লিক করুন। বুঝতে না পারলে নিচের ছবিটি দেখুন।

File Managerএরপর আপনাকে আপনার ওয়েবসাইটের ফাইল মেনেজারে নিয়ে যাওয়া হবে। সেখান থেকে আপনি আপলোড আইকনটিতে ক্লিক করে দিবেন। নিচের ছবিটির মতো।

Upload icon

এবার আপনাকে দেওয়া ফাইলটি সিলেক্ট/নির্বাচন করে আপলোড করে দিন। ব্যাস, আপনার কাজ এখানেই শেষ। এখন শুধু আপনার ভিকটিম বা যার পাসওয়ার্ড হাতাতে চান তার সাথে আপনার এই লিংকটি শেয়ার করুন। আপনার ওয়েবসাইটের লিংক হলো এটা।

Mange websiteএখন যদি আপনার দেওয়া লিংকে কেউ প্রবেশ করে লগিন করে তাহলে আপনি তার ইমেইল ও পাসওয়ার্ড দেখতে পাবেন। সেটা করতে আপনাকে দেওয়া ওয়েব ফাইল্গুলোর মধ্যে একটি ফাইল পাবেন Hacked.txt নামে। ঐটা ওপেন করবেন। তাহলেই এভাবে আপনার ভিকটিমদের ইমেইল ও পাসওয়ার্ড আপনি একদম স্পষ্ট দেখতে পাবেন।

Email and Passwordফিশিং এটাক থেকে বাচার উপায় কিঃ- যেখানে রোগ আছে সেখানে ঔষধও আছে। ঠিক সেরকম ভাবেই যেখানে কেউ আপনাকে ফিশিং এটাক করতে পারে তাহলে আপনিও চাইলে সেই এটাক থেকে বাচতে পারবেন। আর সেটা করতে শুধু মাত্র আপনার একটু সতর্কতার প্রয়োজন।

কিরকম সতর্কতা? সতর্কতা শুধু এইটুকুই যে, আপনি যেকোন ওয়েবসাইটে লগিন করার সময় শুধু ঐ ওয়েবসাইটের লিংকটা একবার দেখে নিবেন। যদি লিংক সঠিক থাকে তাহলে বুঝবে যে আপনি সুরক্ষিত এটা আসল ওয়েবসাইট। আর যদি দেখেন যে লিংকের মধ্যে কোথাও সমস্যা আছে তাহলে ধরে নিবেন যে ঐটা একটি জাল মাত্র আপনার পাসওয়ার্ড হাতানোর জন্যে।

আশা করি আমার আলোচনাটি আপনাদের ভালো লেগেছে, যদি ভালো লেগে থাকে, তাহলে অবশ্যয় এই আর্টিকেলটি আপনার প্রিয় মানুষদের সাথে শেয়ার করবেন যেন তারা কখনো এই এটাকের শিকার না হয়। পাশাপাশি আপনার যদি কোথাও বুঝতে সমস্যা হয় তাহলে তা আমাকে কমেন্ট করে জানাতে ভুলবেন না। আমি আপনার কমেন্টের অপেক্ষায় রইলাম।

আজকে এই পর্যন্তই। ইনশা আল্লাহ্‌ দেখা হবে নতুন কোন আলোচনায়। সে পর্যন্ত ভালো থাকুন সুস্থ থাকুন, সাইবার বাংলার সাথেই থাকুন।

ধন্যবাদ সবাইকে।

Share This:

MD Khokon

সমস্যার সমাধান খুজে বের করতে ভালো লাগে। মানুষের উপকার করাটা আরো বেশি পছন্দনীয়। তাই ইচ্ছা আছে প্রোগ্রামার হওয়ার। আর সেই দিকেই বেশি মনোযোগ দিয়ে কাজ করে যাচ্ছি।

This Post Has 4 Comments

    1. vaiya amar lagbe email [email protected] apnader onek gula post poreci tar modde 2 ta hocce email ar code ar facebook fising ar code ta amar lagbe kono kaap kaje use korbo na khota dicci pls vaiya ami test korra jonno nicci pls [email protected] a patai dan

  1. admin vai fishing code ta amar lagbe ami kono karap kaje laganor jonno nicci na ami amar oviggga test korbo pls vaiya amar email a code ta patai dan email [email protected] pls vaiya video deklam post porlam jodi code ta na pai taile ki hobe post ba video diya pls vaiya code ta email a patai dan [email protected]

Close Menu

Content

Share This: