ভালো আর্টিকেল লিখার উপায় সমূহ

ভালো আর্টিকেল লিখার উপায় সমূহ।

আজকে আমি কিভাবে একটি আর্টিকেল লিখতে হয় তা সম্পর্কে বিস্তারিত জানাবো।বর্তমানে এমন অনেক দেখা যায়,কারো কিছু মন চাইলো সেটা লিখলো আর পোষ্ট করলো আর তার নাম দিয়ে দিলো আর্টিকেল।অথচ সবকিছুর মতো আর্টিকেল লিখারও কিছু নিয়ম রয়েছে,নিয়ম ফলো করলেই সেটাকে সুন্দর ও পরিপাটি আর্টিকেল বলা যায়,যদিও নিয়ম গুলো খুব কঠিন নয় তারপরেও অজ্ঞতার জন্যে অনেকেই এমন করে থাকে,তাহলে চলুন এবার জেনে নেই আর্টিকেল লেখার নিয়ম গুলো কী কী।

১)নির্দিষ্ট কোনো ক্যাটাগরি:
আর্টিকেল বিভিন্ন ধরনের হয়ে থাকে, যেমন:নিউজ,টিউটোরিয়াল,বায়োগ্রাফী,রিভিউ,অভিজ্ঞতা শেয়ার ইত্যাদি।আপনি কোন ক্যাটাগরিতে লিখবেন প্রথমেই তা ভেবে নিন।

২)বিষয়ের উপর সুস্পষ্ট ধারনা:
আপনি যেই বিষয়ে লিখবেন তার উপর সুস্পষ্ট ধারনা থাকা আবশ্যক,যদি স্পষ্ট ধারনা না থাকে তবে জেনে নিবেন,কেননা আপনার লেখার সাহায্যেই আরেকজন বুঝবে।
তাদের বিভিন্ন প্রশ্ন থাকতে পারে সেগুলোর সমাধান আপনাকেই দিতে হবে,তাই বিষয়ের উপর বিস্তারিত ধারনা নিয়েই লিখতে বসবেন।

৩)ব্যাকরণ,বানান,বিরাম চিহ্নের সঠিক ব্যাবহার:
ইংরেজী আর্টিকেল লিখতে গ্রামার তো অবশ্যই প্রয়োজন আর বাংলায় লিখার জন্যও বাক্যের আকাঙ্ক্ষা,আসক্তি,যোগ্যতা,চলিত ও সাধু রীতির মিশ্রন এসব বিষয় ঠিক রাখতে হবে।আমরা ইচ্ছেমত বাংলা লিখে থাকি কিন্তু বানান অনেকেই ঠিক মতো জানি না,যেমন:বাধা আর বাঁধা,পরা আর পড়া,জা আর যা এসব কিন্তু এক নয় আবার অনেক দেখা যায় ইয়া বড় উপন্যাস লিখেই চলেছি কিন্তু কোথাও দাড়ি কমা নেই এমন লিখা বুঝতে অবশ্যই সকলের সমস্যায় পড়তে হয়,তাই এসব বিষয় জেনেই লেখা শুরু করা উচিত।

৪)প্যারা করে লিখা:

আর্টিকেল লিখার সময় প্যারা প্যারা করে লিখবেন,এতে বিষয় বস্তু বুঝতে সুবিধে হয়,পাঠকেরা পড়তে স্বস্তি বোধ করে।

৫)ধাপ সমুহ:

আর্টিকেল সাধারনত তিনটি ধাপে লিখা হয়,প্রথমত ভুমিকা,মুল ভাব,উপসংহার।

৬)ভুল তথ্য বর্জন:

পুর্বেই বলেছি যেই বিষয়ের উপরে লিখবেন তা সম্পর্কে জেনে নিবেন,তাহলে ভুল হবার সম্ভাবনা থাকে না,যদি কোনো ইনফরমেশন ভুল দিয়েও ফেলেন তাহলে কমেন্টে স্বীকার করে নিন,এতে আপনার লেখার প্রতি পাঠকের বিশ্বাস বাড়বে।

৭)অপ্রয়োজনীয় লিখা বর্জন:
আমরা বাঙালিরা মনে করে থাকি “লিখা যত বড় হবে তত ভালো” এটা একদম ভুল কথা,অপ্রয়োজনীয় লিখা কেউ পছন্দ করে না,এতে পাঠকের পড়ার আগ্রহ কমে যায়।এমন অনেক লিখা দেখা যায়,”হ্যালো,হাই” করতেই অনেক বড় করে ফেলেছে কিন্তু আপনি ইংরেজি আর্টিকেল কিংবা ভালো কোনো আর্টিকেলে এসব পাবেন না,তারা সরাসরি টপিক শুরু করে দেয়,তাই যতো পারুন ভুমিকা ছোট করুন।

৮)অল্প কথায় বেশি তথ্য:
একটি প্রবাদ সবাই হয়তো শুনেছেন,কথা কম-কাজ বেশি তাই অবশ্যই লিখার মধ্যে মুল মুল তথ্য যোগ করুন।

৯)শর্টফর্ম ত্যাগ করা:

অলসতা আর টেক্সট এর যুগে সকলেই শর্ট ফর্ম ব্যাবহার করে অভ্যস্ত তাই বলে আর্টিকেলে শর্টভাবে লিখতে যাবেন না,হয়তো এমন অনেক পাঠকেই আছে যারা আপনার শর্ট ফর্ম বুঝবে না।

নিয়ম গুলো মেনে আর্টিকেল লিখুন,আর নিজেই নিজের লেখার মান যাচাই করুন।
হ্যাপি আর্টিকেল রাইটিং।

Share This:
Close Menu

Content

Share This: