সেরা তিনটি ফ্রি ভিপিএন! এবার ব্লক হবে না আর কোন ওয়েবসাইট!

সাইবার বাংলার সকল বন্ধুদের স্বাগতম জানিয়ে শুরু করছি আমার আজকের টিউটোরিয়াল। টাইটেল দেখে হয়তো ইতিমধ্যে বুঝে গেছেন আজকের আলোচনার বিষয়। শুরু করার আগে যারা জানেন না ভিপিএন কি তাদের জন্যে কিছু বাক্য ছেড়ে যায়।

ভিপিএন একটি সংক্ষিপ্ত রূপ। যার মানে হচ্ছে ভার্চুয়াল প্রাইভেট নেটওয়ার্ক(Virtual Private Network). অর্থাৎ ভিপিএন হচ্ছে এমন একটি নেটওয়ার্ক যা আপনাকে প্রাইভেট রাখতে সাহায্য করবে। চলুন বিষয়টি একটু বিস্তারতি বুঝা যাক।

Server

ধরুন, বাংলাদেশে একটি ওয়েবসাইট আপাতত ব্লক আছে। কিন্তু এখন ওয়েবসাইট টি ভিজিট করা আপনার খুব প্রয়োজন। তাহলে এখন কি করবেন? ঠিক এই সময়ে ভিপিএন হতে পারে আপনার সব থেকে কাছের বন্ধু। তাহলে ভিপিএন আসলে করে টা কি? আমি বিষয়টা সম্পূর্ণ আমার নিজের ভাষায় বুঝানোর চেষ্টা করছি।

ভিপিএন মূলত একটি নেটওয়ার্ক যা আপনাকে নির্দিষ্ট একটি সার্ভারের সাথে সংযোক্ত করবে। এখন আপনি একটি ভিপিএনের সাথে কানেক্ট থেকে যদি কোন ওয়েবসাইটে প্রবেশ করতে চান তাহলে আপনার পাঠানো রিকুয়েস্টটি প্রথমে আপনি যে ভিপিএন সার্ভারের সাথে কানেক্ট আছে সেখানে গিয়ে পৌছাবে। এখন সেখান থেকে রিকুয়েস্ট টা আবার যাবে ঐ ওয়েবসাইটে যেটা ভিজিট করার রিকুয়েস্ট আপনি পাঠিয়েছেন।

এবার ঐ ওয়েবসাইটে রিকুয়েস্টটা যাওয়ার পর, রিকুয়েস্টের সাথে সম্পৃক্ত সকল ডাটা পাঠিয়ে দিবে আপনার ভিপিএন সার্ভারকে। এখন আবার আপনার ভিপিএন সার্ভার ঐ ডাটা গুলোকে আপনার মোবাইল বা ডিভাইসে পাঠিয়ে দিবে। সে কারণে ভিপিএন দিয়ে আপনি চাইলে অধিকাংশ ব্লকেড ওয়েবসাইট এক্সেস করতে পারবেন।

বিষয়টা অনেকটা ম্যান ইন দ্যা মিডল এটাকের মতো। পার্থক্য শুধু ঐখানে আপনার ডাটা চুরি করা হয় আর এইখানে আপনার ডাটা সুরক্ষিত থাকে।

আশা করি ভিপিএন সম্পর্কে আপনারা যথেষ্ট ধারণা পেয়েছেন। তারপরেও যদি বুঝতে কোথাও সমস্যা হয় তাহলে কমেন্ট সেকশন তো আপনার জন্যে খুলাই আছে। এখন চলুন দেখে নেই সেরা তিনটি ভিপিএন অ্যাপ। যা দিয়ে আপনি ফ্রিতে চালাতে পারবেন ভিপিএন।

১। Thunder VPN (Download Link)

এটি আমার সব থেকে প্রিয় একটি ভিপিএন। খুবই চমৎকার ভাবে কাজ করে এবং খুব দ্রুত। তাছাড়া USA, UK, GERMEN এর মতো অনেক রাষ্ট্র থেকে সার্ভার কানেক্ট করা যায়।

২। Turbo VPN (Download Link)

ফ্রি ভিপিএন গুলোর মধ্যে এই ভিপিএনটিও অনেক ভালো সার্ভিস দেই। এর গতিও খুব ভালো। মোট কথা আমি সন্তুষ্ট, এবার আপনার পরিক্ষা করার পালা। পরিক্ষা করার পরে আপনার কেমন লাগলো তাও আমাদের জানাতে ভুলে যাবেন না যেন।

৩। Touch VPN (Download Link)

৪ লক্ষ ৪০ হাজারের ও বেশি রিভিউ নিয়ে প্লে স্টোরে বুক ফুলিয়ে দাঁড়িয়ে একটি ভিপিএন এটি। অন্যসব ভিপিএনের মতো এর ও রয়েছে দারুণ সব সার্ভার চয়েজ করার অপশন। স্পীড, কোয়ালিটি আর ইন্টারফেস মিলিয়ে অ্যাপ টি আমার কাছে খারাপ লাগেনি।

তো এই ছিলো আমার আজকের আলোচনা ভিপিএন সম্পর্কে। আর্টিকেলটি আপনার কেমন লাগলো তা কমেন্টে জানাতে ভুলবেন না। দেখা হবে নতুন কোন আলোচনায় পরবর্তী কোন এক সময়ে সে পর্যন্ত ভালো থাকুন সুস্থা থাকুন, সাইবার বাংলার সাথেই থাকুন।

Share This:
Close Menu

Content

Share This: